নাটোরে সড়ক দুর্ঘটনা বাস চালকের রিমান্ড মঞ্জুর, সহকারীর জামিন

cnnbangla.tv:নাটোরের বড়াইগ্রাম ও লালপুর উপজেলার সীমান্তবর্তী কমিদচিলান এলাকায় বাস-লেগুনার মুখোমুখি সংঘর্ষে ১৫ জন নিহতের মামলায় আটক চ্যালেঞ্জার বাসের চালক শামীম হোসেনের একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। আজ বুধবার নাটোরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতের বিচারক সুলতান মাহমুদ এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। একই সঙ্গে চালকের সহকারী আব্দুস সামাদ কমলকে জামিন দেয়া হয়েছে।

এর আগে গত বৃহস্পতিবার তাদের দু’জনকে আদালতে হাজির করে ৫ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছিলেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বনপাড়া হাইওয়ে থানার এসআই তরিকুল ইসলাম।

বনপাড়া হাইওয়ে থানা সূত্রে জানা গেছে, গত ২৫ আগষ্ট রাতে এ ঘটনায় বনপাড়া হাইওয়ে থানার সহকারী উপপরিদর্শক ইউছুফ আলী বাদী হয়ে লালপুর থানায় ৭ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলায় বড়াইগ্রাম উপজেলা লেগুনা মালিক সমিতির সভাপতি জাবেদ আলী মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, লেগুনার চালক আব্দুর রহিম, চালকের সহকারী রাজা মিয়া, চ্যালেঞ্জার বাসের মালিক বগুড়ার মঞ্জু সরকার, বাসের চালক শামীম হোসেন ও চালকের সহকারী আব্দুস সামাদ কমলকে আসামি করা হয়।

আসামিদের মধ্য লেগুনার চালক ও সহকারী দু’জনই দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। পরে বগুড়ার ডিবি পুলিশ বাসচালকের সহকারী আবদুস সামাদ কমলকে বগুড়া শহরতলির মহাস্থানগড় পলাশবাড়ি এলাকার ভাড়া বাসা থেকে তাঁকে আটক করে। এছাড়া বাসচালক শামীম হোসেন মঙ্গলবার বগুড়া ডিবি পুলিশের কাছে আত্মসমর্পন করেন।