মুলাদীতে গৃহবধূকে গণধর্ষণ; ৩ ভাইসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা

cnnbangla.tv:বরিশালের মুলাদীতে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণ শেষে পুনরায় ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে তিন ভাইসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলে বরিশালের নারী ও শিশু নির্যাতন অপরাধ দমন ট্রাইব্যুনালে এই মামলা দায়ের করেন ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূ। মামলার শুনানি শেষে ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আবু শামীম আজাদ অভিযোগ তদন্ত করে প্রতিবেদন দেওয়ার জন্য মুলাদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেন।

 

মামলায় অভিযুক্তরা হল- উপজেলা চরকমিশনার এলাকার আব্বাস হাওলাদার ও মো. কামাল। ধর্ষণ চেষ্টাকারীরা হল- ইদ্রিস হাওলাদার, বছির হাওলাদার ও কছির হাওলাদার।

ট্রাইব্যুনাল সূত্র জানা যায়, একই এলাকার ওই যুবতীকে প্রায়ই পথে-ঘাটে কু-প্রস্তাব দিয়ে আসছিল আব্বাস। ২০১৭ সালের ১৮ জুলাই ওই যুবতীর বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্বামী তাকে তুলে না নেওয়ায় গৃহবধূ তার বাবার বাড়িতে বসবাস করছিল। এই সুবাদে আব্বাস তার বন্ধু কামালকে নিয়ে গৃহবধূর ইজ্জত নষ্ট করার পায়তারা করে। গৃহবধূর বাবা আব্বাসের অভিভাবককে ডেকে তার অপকর্মের বিষয়ে সতর্ক করে দেয়। এতে ক্ষিপ্ত হয় আব্বাস। এর জের ধরে গত ২৭ আগষ্ট আব্বাসসহ অন্যান্যরা গৃহবধূর বাবাকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখম করে।

গত ২৯ আগষ্ট রাতে গৃহবধূ টয়লেট থেকে বের হলে আব্বাস ও কামাল তার মুখে গামছা বেঁধে বাড়ির পিছনে নিয়ে প্রথমে আব্বাস ও পরে কামাল তাকে ধর্ষণ করে। আব্বাস ও কামাল ধর্ষণ করে চলে যাবার পর ইদ্রিস, বছির ও কছির সেখানে উপস্থিত হয়ে গৃহবধূর শ্লীলতাহানিসহ তাকে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। গৃহবধূ কছিরের হাতে কামড় দিলে তারা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় আদালতে মামলা দায়ের করেন ধর্ষিতা।